নিহতের নাম প্রীতম পাল (২৭)।  বাড়ি মহেশতলায়,

নিহতের নাম প্রীতম পাল (২৭)। বাড়ি মহেশতলায়,

ধৃতকে আজ আদালতে তোলা হবে

পুলিশ সূত্রে খবর, নির্যাতিতার নাম প্রীতম পাল (২৮)। বাড়ি মহেশতলায়। ধৃতকে আজ আদালতে তোলা হবে। কেন তিনি এমন করলেন? যে কোথা থেকে এসেছে? কী কারণেই বা এত টাকা নিয়ে রাস্তায় হাঁটছিলেন তিনি? পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।

    উদ্ধার হয়েছে এক কোটি টাকা

উদ্ধার হয়েছে এক কোটি টাকা

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সোমবার রাতে পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স অ্যাসেম্বলি অব গড চার্জ চত্বরে অভিযান চালায়। সেখানে সন্দেহজনক যুবককে দেখতে পান তারা। অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। এরপর তার হাতে থাকা ব্যাগটি তল্লাশি করে পুলিশ। সেখান থেকে নগদ ১ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ অভিযুক্তদের কাছে টাকার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলেও কোনো সঠিক উত্তর পায়নি। এরপর ঘটনাস্থল থেকে তাকে আটক করা হয়।

তাকে পার্ক স্ট্রিট থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়

তাকে পার্ক স্ট্রিট থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়

মঙ্গলবার ধৃতকে আদালতে তোলা হবে। পুলিশ জানিয়েছে, বেশিরভাগ নোটই ছিল 2000 টাকার নোট। সঙ্গে ছিল ৫০০ টাকার নোটের বান্ডিলও। যা পুলিশ উদ্ধার করেছে। পুলিশ আরও জানায়, কেন তিনি বিপুল পরিমাণ টাকা নিয়ে যাচ্ছেন জানতে চাইলে অভিযুক্ত সঠিক উত্তর দিতে পারেনি। এরপর তাকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযুক্তকে পার্ক স্ট্রিট থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

    কলকাতায় প্রাক-নির্বাচনের আগে এমন ঘটনা কেন?

কলকাতায় প্রাক-নির্বাচনের আগে এমন ঘটনা কেন?

কলকাতায় প্রাকভোটের আগে এমন ঘটনা! উদ্ধারকৃত অর্থের পরিমাণ নিয়ে ইতিমধ্যেই একাধিক প্রশ্ন উঠেছে। তাহলে কি প্রাক-ভোটের কারণে এই টাকা শহরে আনা হয়েছিল? নাকি অন্য কোনো কারণ? পুলিশ তদন্ত করছে। ভোটের টাকা ব্যবহার হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে এসটিএফ। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে।

Leave a Comment