'আর খেলা হবে না'!  টিএমসি নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেছেন কলকাতা পৌরসভা নির্বাচনে 2021-এ কোনও খেলা নেই।

‘আর খেলা হবে না’! টিএমসি নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেছেন কলকাতা পৌরসভা নির্বাচনে 2021-এ কোনও খেলা নেই।

দেবাংশুর পোস্ট এই মুহূর্তে ভাইরাল

দেবাংশু ভট্টাচার্য কলকাতার প্রাক-নির্বাচনের প্রচারে নেমেছিলেন। বিভিন্ন ওয়ার্ডে চলছে গণসংযোগ, মিটিং-মিছিল। তৃণমূল কংগ্রেস সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলিও প্রচারে হাত দিয়েছে। 19 ডিসেম্বর প্রাক-ভোটের আগে প্রচার পুরোদমে চলছে। দলের মুখপাত্র দেবাংশুও তৃণমূলের হয়ে প্রচার শুরু করেছেন। তিনি তার স্পেসে একটি পোস্ট করেছেন, যা এই মুহূর্তে ভাইরাল।

এবার আর খেলা হবে না বলেই জানিয়েছেন দেবাংশু

প্রচারণার ফাঁকে দেবাংশু সোমবার ফেসবুকে পোস্ট দেন, এবার আর খেলা হবে না। তার মামলার সমর্থকরা এই বিবৃতিটির প্রকৃত প্রতিলিপি অনলাইনে উপলব্ধ করার জন্য কাজ করছেন। ও এভাবে কথা বলছে কেন। ফেসবুক পোস্টে তার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন দেবাংশু। তিনি লিখেছেন, এবার খেলা হবে না, কারণ মাঠে অন্য দলের কোনো খেলোয়াড় নেই। প্রতিটি প্রচার মিছিল যেন বিজয় মিছিল। তারপর লিখেছেন, এদিন উত্তর কলকাতার মিছিলে। নিচে মিছিলের কিছু ছবি দেওয়া হল।

কলকাতা প্রাক-নির্বাচন প্রচারে বিজেপি উন্মত্ত

কলকাতা প্রাক-নির্বাচন প্রচারে বিজেপি উন্মত্ত

সোমবার বিকেলে তার লেখা এই পোস্টটি ভাইরাল হয়ে যায়। আসলে ‘এবার আর খেলা হবে না’ বলে বিজেপিকে কটাক্ষ করেছেন তিনি। কলকাতা পুরসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি বেশ গোলমেলে। তারপরও প্রচারণা শুরু হয়নি। তৃণমূলের দাবি, কলকাতা প্রাক-নির্বাচন প্রচারে তাড়াহুড়ো করছে বিজেপি। তিনি ব্যঙ্গ করে বললেন, এবার আর খেলা হবে না।

দেবাংশুর ওই পোস্টের পরই মন্তব্যের বন্যা

দেবাংশুর ওই পোস্টের পরই মন্তব্যের বন্যা

হুডওয়ালা গাড়িতে প্রচারণায় অংশ নেন দেবাংশু। ফেসবুকে প্রচারণার ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। ছবিতে তিনি দেখিয়েছেন, প্রচারণায় মানুষের ঢল নেমেছে। কলকাতায় পদদলিত করছে তৃণমূল। আর বিজেপির পালে হাওয়া নেই। দেবাংশুর ওই পোস্টের পর ফেসবুকে মন্তব্যের বন্যা বইছে। অনেক ভালো-মন্দ হয়েছে। অনেকে নানা পরামর্শও দিয়েছেন। অনেকেই তাকে সমর্থন করেছেন।

'খেলা চাই' স্লোগানে ঝড় ওঠে বাংলার গ্রাম-শহরে।

‘খেলা চাই’ স্লোগানে ঝড় ওঠে বাংলার গ্রাম-শহরে।

একুশে নির্বাচনের আগে ‘খেলা চান’ স্লোগান তুলেছিলেন দেবাংশু। আসলে, তিনি একটি কবিতা লিখেছেন, এটি একটি গানে পরিণত হয়েছে। তারপর সেখান থেকে ‘বাজবে’ স্লোগান তৈরি হয়। বাংলার গ্রাম-শহরে ঝড় তোলে। এমনকি বিজেপির জয় শ্রীরামের কণ্ঠকে স্তব্ধ করে দিয়েছিল। আর তার স্লোগান এখন জাতীয় রাজনীতিতে ব্যবহৃত হচ্ছে।

Leave a Comment