অভিষেকের হুঁশিয়ারি কাজ করেনি, কেএমসি ভোটে সকাল থেকে সংঘর্ষের অভিযোগ অভিষেকের হুঁশিয়ারি কাজ করেনি, কেএমসি ভোটে সকাল থেকেই চলছে সংঘর্ষের অভিযোগ

অভিষেকের হুঁশিয়ারি কাজ করেনি, কেএমসি ভোটে সকাল থেকে সংঘর্ষের অভিযোগ অভিষেকের হুঁশিয়ারি কাজ করেনি, কেএমসি ভোটে সকাল থেকেই চলছে সংঘর্ষের অভিযোগ

শুরুতেই ১১০তম অভিযোগ!

সকালে ভোট শুরু হতে না হতেই অভিযোগ আসে ১১০ নম্বর ওয়ার্ড থেকে। তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বাম প্রার্থী তনুশ্রী মণ্ডলের এজেন্টকে বসতে দিচ্ছিল না তারা। ১নং ওয়ার্ডে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের আবার বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়েছে। বিজেপি প্রার্থীর উদ্যোগে শেষ পর্যন্ত বুথে প্রবেশ করেন তিনি। ৬ নং ওয়ার্ডের ১নং বুথেও অবৈধ জমায়েতের অভিযোগ উঠেছে।

মণীন্দ্র কলেজে ঝামেলা!

মণীন্দ্র কলেজে ঝামেলা!

সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে শ্যামবাজারের মণীন্দ্র কলেজ। তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বাম এজেন্টকে বসতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। সেখানে সিপিএম প্রার্থী করুণা সেনগুপ্তা হাজির হলেই বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এদিন ভুয়া ভোটারও দেখা গেছে। 45 নং ওয়ার্ডে, কংগ্রেস 8 নকল ভোটারদের ধরল একই সময়ে, 102,109,110 নম্বর ওয়ার্ড আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। সকালে সিপিএম প্রার্থী তনুশ্রী মণ্ডলের এজেন্টকে থামানো হয়। রাত নয়টার দিকে ওয়ার্ডের বেশ কয়েকটি বুথ থেকে বাম এজেন্টকে উচ্ছেদ করা হয়। ঘটনার পর দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অভিযোগ করেন বামপন্থীরা।

বেলেঘাটায় বোমা হামলা!

বেলেঘাটায় বোমা হামলা!

বোমা হামলাও বাদ যায়নি। একই অভিযোগ উঠেছে ১নং ওয়ার্ডেও। আতঙ্কে ছুটতে দেখা গেছে সাধারণ মানুষকে। জোড়াবাগানে ফের হেনস্থার অভিযোগ উঠল বিজেপি প্রার্থী মীনা দেবী পুরোহিতের বিরুদ্ধে। শাসক দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, মীনা দেবী পুরোহিতের শাড়ি, ব্লাউজ ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, অভিযোগ তদন্ত করা হবে

সিপিআইএম প্রার্থীর পরিবারকে ভয় দেখানোর অভিযোগ!

সিপিআইএম প্রার্থীর পরিবারকে ভয় দেখানোর অভিযোগ!

8 নম্বর ওয়ার্ডে সিপিআইএম প্রার্থীর পরিবারকে ভয় দেখানো এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এতে ওই প্রার্থী ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। ৩নং ওয়ার্ডে অবৈধ সমাবেশের অভিযোগ। এবার বিজেপির অফিস বন্ধ করে দিল বিজেপি প্রার্থী সজল ঘোষ মেটিয়াবুরুজের ১৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের ছয়টি বুথে দরজা বন্ধ করে গোপনে ভোট দেওয়ার অভিযোগ উঠল আরও একটি। বরাবরের মতোই প্রশ্নের মুখে কলকাতা পুলিশ, নির্বাচন কমিশন। বিরিয়ানি, চিকেন প্রেসারও বাদ যায়নি। এবার দোষের তীর বিজেপি প্রার্থীর দিকে। গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে বিরিয়ানি খেয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছে।

Leave a Comment